হঠাৎ কেনো সবর শাবানা (ভিডিও)

Spread the love

চলচ্চিত্রের কিংবদন্তি অভিনেত্রী শাবানা। মাত্র আট বছর বয়সে এহতেশাম পরিচালিত ‘নতুন সুর’ সিনেমাতে শিশু শিল্পী হিসেবে অভিনয় শুরু করেন। এরপর একে একে অসংখ্য হিট সিনেমা উপহার দিয়েছেন গুণী এই অভিনেত্রী। দীর্ঘ প্রায় ২০ বছর ধরে অভিনয় থেকে দূরে রয়েছেন শাবানা। স্বামী সন্তান নিয়ে থাকেন যুক্তরাষ্ট্রে। তবে মাঝে-মধ্যে দেশে বেড়াতে আসেন।

সম্প্রতি কিংবদন্তি এই অভিনেত্রী দেশে এসেছেন। তার সঙ্গে রয়েছেন স্বামী চিত্রপ্রযোজক ওয়াহিদ সাদিক। এর আগে শাবানা বহুবার দেশে ফিরলেও গণমাধ্যমের মুখোমুখি হননি কখনও। তবে এবার দেশে ফিরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়েছেন তিনি। কথা বলেছেন অভিনয় ও অতীত জীবন নিয়ে। কিন্তু হঠাৎ করে কেনো তিনি এতোটা সরব হয়ে উঠলেন? তা নিয়ে চলছে গুঞ্জন।

সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় শাবানা বলেন, ‘আমি যখন অভিনয় করতাম পোশাকের ব্যাপারে খুব সচেতন ছিলাম। একবার “বধূ বিদায়” সিনেমাতে পরিচালক প্রথমে আমাকে গল্পটা শোনালেন। এরপর গ্রামের মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করার জন্য বললেন। পরিচালক জানান, এটা এমন একটি চরিত্র গ্রামের মেয়ে খালি গাঁয়ে শুধু একটা শাড়ি পরে অভিনয় করতে হবে। তখন আমি তাকে না করে দিয়েছিলাম। তখন পরিচালক আমায় শহরের মেয়ের চরিত্র দিয়েছিলেন।’

অভিনয় প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, ‘আমি সব সময় গল্প ও চরিত্র নিয়ে ভাবতাম। কোথাও শুটিংয়ে গেলে ভালোভাবে পর্যবেক্ষণ করতাম। পরিচালক ও নায়ক নিয়ে অতটা ভাবতাম না। আমি চাইতাম সিনেমাতে আমার চরিত্রটা যেন ভালো হোক।’

এদিকে জানা গেছে অভিনেত্রী নাকি তার স্বামীর জন্য সরব হয়ে উঠেছেন। যশোরের উপনির্বাচনে স্বামী ওয়াহিদ সাদিককে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন পেতে মাঠে নেমেছেন চিত্রনায়িকা শাবানা। সম্প্রতি মনোনয়ন প্রত্যাশার কথাও জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন শাবানা ও তার স্বামী ওয়াহিদ সাদিক। বড়েঙ্গা গ্রামের বাড়িতে সংবাদ সম্মেলনে চিত্রনায়িকা শাবানা বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সভানেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা তাকে নির্বাচন করতে বলেছিলেন। তিনি (শাবানা) নিজের পরিবর্তে তার স্বামীর (ওয়াহিদ সাদিক) জন্য নৌকার মনোনয়ন চেয়েছিলেন। নেত্রী এলাকায় কাজ করার জন্য বলেছেন। এজন্য তারা মাঠে নেমেছেন।’

ওয়াহিদ সাদিকও কণ্ঠ মিলিয়ে বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর নির্দেশে তারা এলাকায় এসেছেন এবং জনসংযোগ শুরু করছেন। এজন্য নৌকার মনোনয়ন পাওয়ার ব্যাপারে তিনি শতভাগ আশাবাদী।’

উল্লেখ্য, গত ২১ জানুয়ারি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন যশোর-৬ আসনের সংসদ সদস্য ইসমাত আরা সাদেক। এরপর ২৮ জানুয়ারি জাতীয় সংসদে এই আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়। আর সেখানেই নির্বাচন করতে যাচ্ছেন শাবানার স্বামী ওয়াহিদ সাদিক।