সন্তান কোলে ফিরলেন জলি, অভিনয়কে বিদায়ের চিন্তা

Spread the love

জাজ মাল্টিমিডিয়ার নায়িকা হয়ে শোবিজ পাড়ায় যাত্রা শুরু করেন চিত্রনায়িকা জলি। একে একে অভিনয় করেন ‘অঙ্গার, ‘নিয়তি’ ও ‘মেয়েটি এখন কোথায় যাবে’ সিনেমাতে। অল্প ক’দিনেই হয়ে ওঠেন দর্শকপ্রিয় অভিনেত্রীদের একজন। অভিনয় নিয়ে যখন তুমুল ব্যস্ত, তখন হুট করেই আড়ালে চলে যান জলি। এরপর নেই কোনো খবরে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বর্তমানে স্বামী-সংসার নিয়ে ব্যস্ত রয়েছেন তিনি। বর্তমানে শ্বশুরবাড়ি বগুড়ায় অবস্থান করছেন। সংসারের ব্যস্ততার কারণেই অভিনয়ে সময় দিতে পারছেন না এই অভিনেত্রী।

এদিকে জানা গেছে নতুন খবর। চিত্রনায়িকা ফালগুনি রহমান জলি মা হয়েছেন। গত ১৭ জুলাই রাজধানীর উত্তরার একটি হাসপাতালে কন্যাসন্তানের জন্ম দেন সম্ভাবনাময়ী এই অভিনয়শিল্পী। বিষয়টি জলি নিজেই নিশ্চিত করেছেন। মেয়ের নাম রেখেছেন সেহেমাত রহমান।

তিনি বলেন, আল্লাহর অশেষ রহমতে আমি মা হয়েছি। আমার মেয়েকে নিয়ে এখন আমার চমৎকার সময় কাটছে। এখন আপনাদের সবার দোয়া চাই।

এই খবর গণমাধ্যমের অন্তরালে থাকার কারণ প্রসঙ্গে জলি বলেন, আসলে আমি তো ঢাকায় থাকি না। আর যেহেতু আমার মেয়ে খুব ছোট, ভেবেছি ও বড় হোক, তারপর এই খবর সবাইকে জানাব। প্রত্যেক মেয়েই মা হওয়ার স্বপ্ন দেখে। আমি এই পৃথিবীতে সন্তান জন্ম দিতে পেরেছি, এর চেয়ে আনন্দের আর কিছু নেই আমার কাছে।

গত বছরের ১৯ মে জলির বিয়ের খবর প্রকাশ হয়। সে সময় তিনি বলেছিলেন বিয়ে হয়নি, আঙটি বদল হয়েছে। তবে এ ঘটনার পর একেবারে মা হওয়ার খবর পাওয়া গেল।

জলির স্বামী আরাফাত রহমান কিশোরগঞ্জের ভৈরবের বাসিন্দা। রাজধানীর ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টসে (ইউল্যাব) ব্যাচেলর পড়ছেন, পাশাপাশি বাবার ব্যবসা দেখাশোনা করছেন। পাঁচ বছরের প্রণয় থেকে পরিণয়ে গড়া সম্পর্ক। এবার তাঁদের একেবারে মা-বাবা হওয়ার খবর জানা গেল।

জলি অভিনীত প্রথম সিনেমা ‘অঙ্গার’। এতে জলির বিপরীতে অভিনয় করেছিলেন কলকাতার ওম। এরপর আরিফিন শুভর সঙ্গে ‘নিয়তি’ ও শাহরিয়াজের সঙ্গে ‘মেয়েটি এখন কোথায় যাবে’ ছবি দুটি মুক্তি পায়। সম্প্রতি কাজ শেষ করা তাঁর ‘ডেঞ্জার জোন’ সিনেমাটি রয়েছে মুক্তির অপেক্ষায়। ‘অফিসার রিটার্নস’ নামে একটি সিনেমাতে চুক্তিবদ্ধ হয়ে আছেন।

চিত্রনায়িকা জলি আরো বলেন, ‘আপাতত সংসার নিয়েই ব্যস্ত আছি। হাতে “অফিসার রিটার্নস” সিনেমার কাজ আছে। আর “ডেঞ্জার জোন”র কাজটি শেষ করেছি বেশ কিছুদিন আগেই। সিনেমার শুটিংয়ে ফিরতে একটু সময় লাগবে আমার। আসলে বিয়ের পর শ্বশুরবাড়ির লোকজন চায় না আমি সিনেমায় কাজ করি। তাই অভিনয়ে এখন সময় দেওয়া হয় না। তবে সিনেমা জগতের মানুষজনের সঙ্গে যোগাযোগ আছে। প্রায়ই তাদের সঙ্গে কথা হয়।’

অভিনয়কে বিদায় জানানো প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘এ বিষয়ে এখনো কোন সিদ্ধান্ত নেইনি। আর শুরু থেকেই কিন্তু আমি খুব বেছে বেছে কাজ করেছি। যে কারণে আমার কাজের সংখ্যাও অনেক কম। হতে পারে এভাবেই কাজ করব। আবার হতে পারে অভিনয়কে বিদায় জানাবো।’

জলি আরও বলেন, ‘সংসার আর সিনেমা দুইটা ভিন্ন জগৎ। আমি ছোটবেলা থেকেই পরিবারকে গুরুত্ব দিয়ে আসছি। যেহেতু এখন পরিবারের মানুষজনরা চাচ্ছেন না, আমি সিনেমায় কাজ করি। তাদের সিদ্ধান্তকে সম্মান জানিয়ে অভিনয় থেকে দূরে আছি।’

ক্যারিয়ার নিয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করে জলি বলেন, ‘ক্যারিয়ারে অনেক মানুষের ভালোবাসা, সাপোর্ট পেয়েছি। সেগুলো কখনো ভুলবো না। সবার কাছে কৃতজ্ঞ থাকবো আজীবন। শিল্পী হিসেবে আমার দায়বদ্ধতা আছে। তাই অসমাপ্ত কাজগুলো শেষ করবো। সিনেমাগুলো মুক্তির পরই ক্যারিয়ার নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেব।’