রাজনীতির মাঠে তারকাদের মেলা : কোন তারকা কোন আসনে?

Spread the love

দেশের রাজনীতিতে নয়া চমক। তারকারা এবার নির্বাচনে। মাঠ, পর্দা কাঁপিয়ে এবার তারা রাজনীতির ময়দানে। আগামী নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে প্রার্থী হতে যাচ্ছেন তারা। জাতীয় ক্রিকেট দলের সদস্য মাশরাফি বিন মর্তুজা এরই মধ্যে নিশ্চিত করেছে ক্ষমতাসীন দলের হয়ে নির্বাচনে অংশ নেওয়ার। এছাড়া বেশ কয়েকজন অভিনয়শিল্পীও পেতে যাচ্ছেন মনোনয়ন। একাধিক বরেণ্য অর্থনীতিবিদের পাশাপাশি নাগরিক সমাজের একাধিক সদস্যও আছেন তালিকায়। সবার প্রতীক একটাই ‘নৌকা’। গত দুই মেয়াদে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ আগামী নির্বাচনকে গুরুত্বের সঙ্গে দেখছে।

মাশরাফির জন্য নড়াইল-২ আসন বেছে রেখেছে আওয়ামী লীগ। এদিকে ‘তারকা ব্যক্তিদের’ মনোনয়ন দিলে ঢাকাসহ সারাদেশে নির্বাচনী উৎসব বিরাজ করবে বলে তাদের ধারণা। জানা গেছে, বাগেরহাট-৩ আসন থেকে মনোনয়ন ফরম নিয়েছেন চলচ্চিত্র অভিনেতা শাকিল খান। প্রখ্যাত অভিনেত্রী রোকেয়া প্রাচী ফরম নিয়েছেন ফেনী-৩ আসনের জন্য। ৯০ দশকে বাংলা নাটকের তুখোড় অভিনেত্রী শমী কায়সারও ফেনী-২ আসন থেকে মনোনয়ন ফরম কিনতে পারেন বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের নেতারাই। আরও চমক হয়ে আসছেন চিত্রনায়ক ফেরদৌস। তিনি মনোনয়ন ফরম কিনতে যাচ্ছেন যশোর-৩ আসন থেকে। বিএনপিপন্থী অভিনেতা হিসেবে পরিচিত মনোয়ার হোসেন ডিপজল এরই মধ্যে ঢাকা-১৪ আসন থেকে ফরম নিয়েছেন। নাট্যব্যক্তিত্ব গোলাম কুদ্দুসও মনোনয়ন ফরম কিনতে পারেন নোয়াখালী-১ আসন থেকে।

ম. হামিদ নিতে পারেন একটি আসন থেকে। অভিনেত্রী এবং ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম সংরক্ষিত নারী আসনের সদস্যের পরিচয় ঘুচিয়ে সরাসরি নির্বাচনে নামতে চান। তিনি মনোনয়ন ফরম কিনেছেন টাঙ্গাইল-৬ আসনের জন্য। নাটকের জনপ্রিয় অভিনেতা সিদ্দিকুর রহমান ফরম নিয়েছেন টাঙ্গাইল-১ আসন থেকে। কণ্ঠশিল্পী মমতাজ বেগমকে মানিকগঞ্জ-২ আসন প্রার্থী করে ২০০৮ সালেই সংরক্ষিত নারী আসনের সদস্য করে চমকে দিয়েছিল আওয়ামী লীগ। ২০১৪ সালে তাকে সরাসরি প্রার্থী করা হয়। ফরাসউদ্দিন আহমেদকে অর্থনীতির তারকা বললে অত্যুক্তি হয় না। তিনি ফরম নিয়েছেন হবিগঞ্জ-৪ আসন থেকে। বাংলাদেশ ফুটবল দলের সাবেক অধিনায়ক আরিফ খান জয় ২০০৮ সালে নেত্রকোণা-২ আসন থেকে বিপুল ব্যবধানে সংসদ সদস্য হন। বর্তমান তিনি যুব ও ক্রীড়া উপমন্ত্রী। এবারও তিনি এই আসন থেকে মনোনয়ন চাইবেন।

বাংলা চলচ্চিত্রের মিষ্টি মেয়ে সারাহ কবরী ২০০৮ সালে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। তবে দশম সংসদ নির্বাচনে মনোনয়ন পাননি। আর এবার তিনি ফরম তুলেছেন ঢাকা-১৭ আসনের জন্য। বাংলাদেশ টেস্ট দলের প্রথম অধিনায়ক নাঈমুর রহমান দুর্জয় ২০১৪ সালে মানিকগঞ্জ-১ আসন থেকে নির্বাচিত হন সরাসরি ভোটে। এবারও তাকে ওই আসনটি দেয়ার বিষয়টি অনেকটাই নিশ্চিত। সব মিলিয়ে বলা যায় এযেনো তারকাদের নির্বাচনি উৎসবে পরিণত হয়েছে সংসদ নির্বাচন।