ভারতীয় সিরিয়াল ‘জাহানারা’, একটি মুসলিম মেয়ের লড়াই

Spread the love

ভারতীয় সিরিয়াল মানেই অন্যরকম আকর্ষণ। দুই বাংলার নারীদের কাছে শাশুড়ি-বউয়ের ঝগড়া যেনো খুব জমে। কোথাও বাঙালির ঘরের অহংকারি বউ শাশুড়ির যুদ্ধ। কোথাও দুই নারীর কোন্দোল। কিন্তু সেখানে যদি এক মুসলিম মেয়ে নিজের শর্তে বাঁচতে চায়? সমাজের অন্ধকার দিকের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যায় একার জেদে? তাহলে কেমন হয়?

এমন একটি মেয়ের গল্প নিয়ে টিভির পর্দায় শুরু হয়েছে সিরিয়াল ‘জাহানারা’।

মুসলিম মেয়ের এমন গল্প নিয়ে ভাতরীয় চ্যানেলে খুব একটা হয় নয়। তবে দর্শকরা নতুন এই সিরিয়ালটি বেশ ভালোভাবেই গ্রহণ করেছে।

নির্মাতা বাবু জানান, টিআরপি ক্রমশ উন্নতি হচ্ছে। ফলে দর্শক যে এই ধারাবাহিক পছন্দ করছেন, তার প্রমাণ পাওয়া যাচ্ছে।

জাহানারা সেই মেয়ের গল্প যে সমাজের বহুল প্রচলিত নিয়মের বিরুদ্ধে লড়তে ভয় পায় না। বাবা নিজামুদ্দিনের শিক্ষা ও আদর্শে বড় হয়েছে সে ও তার দিদি রুবিনা। সব কিছু যুক্তি বুদ্ধি দিয়ে বিচার করতে শিখেছে। সমাজের যে নিয়মগুলো সমাজকে আরও পিছিয়ে নিয়ে যায় এবং সমাজে মেয়েদের মাথা তুলে দাঁড়াতে বাধা দেয়, জাহানারা রুখে দাঁড়ায় তার বিরুদ্ধে। পেশায় সে উকিল এবং গল্পের শুরুতেই তিন তালাকের বিরুদ্ধে মামলা লড়ে মেয়েটি।

জাহানারা লড়ছে সমাজের সব মেয়েদের হয়ে, কিন্তু তার দিদির জীবনেই নেমে আসে অন্ধকার। রুবিনার বিয়ে হয় এক গোঁড়া মুসলিম পরিবারে। এর পর জাহানারার লড়াই শুধু বাইরে সীমাবদ্ধ থাকে না। তার লড়াই শুরু হয় কাছের মানুষদের জন্যও। আসলে জাহানারা শুধু একটা মেয়ের গল্প নয়, জাহানারা একটা লড়াইয়ের নাম।

এই ধারাবাহিকে জাহানারার ভূমিকায় অভিনয় করছেন শ্বেতা মিশ্র। রুবিনার ভূমিকায় রয়েছেন পায়েল দে। এ ছাড়াও রয়েছে- কুশল চক্রবর্তী, শঙ্কর চক্রবর্তী, দেবযানী চট্টোপাধ্যায়। সিরিয়ালটি প্রযোজনা করেছে- বাবু বণিক প্রোডাকশন এবং সহ প্রযোজক ফিরদৌসুল হাসান ও প্রবাল হালদার।