দীঘি এবার বাপ্পির নায়িকা

Spread the love

প্রার্থনা ফারদিন দীঘি। এক সময় শিশুশিল্পী হিসেবে বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন তিনি। এরপর সময় গড়িয়ে গেছে, এখন তিনি পরিপূর্ণ অভিনেত্রী। এরই মধ্যে নায়িকা হিসেবে বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্রে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। নতুন খবর হচ্ছে- এবার দীঘির হাত ধরে ঢাকাই সিনেমাতে আসছে নতুন জুটি। নায়ক আর কেউ নন, বাপ্পী চৌধুরী। বর্তমানে ঢাকাই চলচ্চিত্রের অন্যতম জনপ্রিয় নায়ক তিনি।

ক্যারিয়ারের শুরুতেই বেশ কিছু আলোচিত সিনেমা উপহার দিয়েছেন বাপ্পী। সেই সঙ্গে চলচ্চিত্রে নিজের অবস্থান পাকাপোক্ত করেছেন। ২০১২ সালে ‘ভালোবাসার রঙ’ সিনেমার মধ্যেদিয়ে অভিনয় জগতে অভিষেক হয় তার।

গত শনিবার ‘তুমি আছো তুমি নেই’ নামের একটি সিনেমাতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন বাপ্পী ও দিঘী। গুণী নির্মাতা দেলোয়ার জাহান ঝন্টু পরিচালিত এই সিনেমা নির্মিত হচ্ছে এসকে ফিল্মস ইন্টারন্যাশনালের ব্যানারে। নতুন এই সিনেমাটির শুটিং শুরু হবে নভেম্বরের মাঝামাঝিতে।

জানা গেছে, আগামী মাসের মাঝামাঝি শুটিং শুরু হতে পারে। টানা শুটিংয়ের পরিকল্পনা আছে। এমনকি এক লটেই নাকি সিনেমার ক্যামেরা বন্ধ হবে। আর নতুন বছরে, অর্থাৎ ২০২১ সালের শুরুতেই ‘তুমি আছো তুমি নেই’ সিনেমাটি মুক্তি দেওয়া হবে।

এদিকে ‘৫৭০’ সিনেমার শুটিং ব্যস্ততায় থাকা বাপ্পী চৌধুরী বলেন, ‘সিনেমাটির গল্পের প্রয়োজনেই নির্মাতা ও প্রযোজক আমাকে আর দীঘিকে চুক্তিবদ্ধ করেছেন। আশা করি আমাদের নতুন এই জার্নি দারুন কিছুই হবে। দর্শকরা আমাদের নতুন রসায়ন দেখতে পাবেন।’

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশের সর্বাধিক সিনেমার পরিচালক দেলোয়ার জাহান ঝন্টু। তার ৮৯তম সিনেমা ‘তুমি আছো তুমি নেই’। এর নায়িকা হচ্ছেন প্রার্থনা ফারদিন দীঘি। সম্প্রতি সিনেমাটিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন তিনি।

দেলোয়ার জাহান ঝন্টু বলেন, রোমান্টিক একটি গল্পে নতুন সিনেমাটি নির্মিত হচ্ছে। আমরা চাইছি এক লটে ২৫ দিনে পুরো কাজ শেষ করে দ্রুত রিলিজ দিয়ে দেবো। সে অনুযায়ী পরিকল্পনা করছি।

প্রবীণ এই নির্মাতা আরও বলেন, গল্পটায় ঠিক দীঘির মতো একটা মেয়েকেই দরকার ছিল। সেজন্য তাকেই যথার্থ মনে হয়েছে। শিশুশিল্পী হিসেবে তো দীঘি অনেক জনপ্রিয়, আশা করছি নায়িকা হিসেবে আরও ভালো করবে। সব ঠিক থাকলে এটি হতে পারে নায়িকা হিসেবে তার প্রথম মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমা।

‘তুমি আছো তুমি নেই’ সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন দীঘি। তিনি বলেন, দেলোয়ার জাহান ঝন্টু স্যার অনেক বড় মাপের একজন পরিচালক। তার সিনেমায় অভিনয়ের সুযোগ পাওয়া খুব আনন্দের ব্যাপার। সিনেমাটির পুরো স্ক্রিপ্ট এখনো হাতে পাইনি। তবে চরিত্রের যতটুকু ধারণা পেয়েছি সে অনুযায়ী নিজেকে প্রস্তুত করছি।

সিনেমাটির গল্প ও চিত্রনাট্য দেলোয়ার জাহান ঝন্টুর নিজের।

এই সিনেমাটিসহ বর্তমানে দীঘির হাতে মোট ৭টি সিনেমা রয়েছে। এরমধ্যে পাঁচটি সিনেমাই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়ার। এছাড়া বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকে রেণু চরিত্রে দেখা যাবে দীঘিকে।