ত্বক উজ্জ্বল, দাগহীন কোমল মসৃণ রাখতে মুগ ডাল

Spread the love

বর্তমান সময়ে মেয়েরা খুব বেশি রূপ সচেতন হয়ে উঠেছে। তারা প্রতিদিন নিজেদের চেহারা আরও বেশি সুন্দর ও আকর্ষণীয় করে তুলতে বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করছে। বিভিন্ন ধরনের মেকআপ ও প্যাক কিনে এনে অথবা বিউটি পার্লারে গিয়ে তারা নিজেদের ফিট করছে। অনেকে আবার ঘরোয়া পদ্ধতিতে বিভিন্ন ভাবে সুন্দর থাকতে চেষ্টা করছে। সৌন্দয্য সচেতন নারীরা প্রাকৃতিক নানা উপাদানের ওপর নির্ভর করে। আজ জানাবো এমন একটি প্রাকৃতিক উপাদানের সংবাদ যা আপনার হাতের কাছেই পাবেন। সেটি হচ্ছে- মুগ ডাল। ত্বকের যত্নে মশুর ডাল আর বেসনের কথা অনেকেই জানি কিন্তু মুগ ডাল একটি অনেক ভালো প্রাকৃতিক উপাদান।

ত্বক উজ্জ্বল, দাগহীন কোমল মসৃণ রাখতে মুগ ডালের বিকল্প নাই। আসুন জেনে নি কীভাবে মুগডালের ব্যবহার করতে হয় :

– আপনার মুখের শুষ্ক ত্বক নরম ও নমনীয় করতে মুগডাল সারারাত কাঁচা দুধে ভিজিয়ে ডালের পেস্ট করে ফেসপ্যাক ব্যবহার করতে পারেন। ১৫ মিনিট প্যাকমুখে মাখতে হবে। তারপর মুখ ধুয়ে একটা নরম তোয়ালে দিয়ে মুখ মুছে নিন।

– মুগ ডালের একটি বৈশিষ্ট্য হচ্ছে এটি ত্বকে তেল ময়লা আটকে পড়তে দেয় না। ব্রণের সমস্যায় মুগ ডাল পেস্টের সঙ্গে ঘি মিশিয়ে আঙুলের ডগা দিয়ে ঘষে ঘষে সারা মুখে মেখে রাখুন। ১৫ মিনিট পরে মুখ ধুয়ে নিন। ফেসপ্যাকটি সপ্তাহে তিন দিন ব্যবহার করতে হবে।

– অনেকেরই মুখে লোম থাকে, যদি লোম তুলতে কেমিক্যাল ব্লিচ ব্যবহার করেন, তা ত্বকের জন্য ক্ষতিকর আর থ্রেডিং একটি কষ্টকরপদ্ধতি। এটা থেকে মুক্তি পেতে সারারাত ভিজিয়ে ডালের পেস্ট তৈরি করে সাথে কিছুটা চন্দন গুঁড়া ও কমলা লেবুর খোসা গুঁড়া মেশাতে হবে। প্রয়োজনে সামান্য দুধ মেশাতে পারেন। এই পেস্টটি কয়েকবার মুখে ম্যাসাজ করতে হবে। দুই- তিন বার ব্যবহারের পরই আপনি মুখে মুখের লোমের পরিমাণ কমতে থাকবে।

– নিয়মিত রোদে বের হলে সান ট্যান(ত্বক রোদে পোড়া) সাধারণ ঘটনা। ত্বককে সূর্যের ক্ষতিকর ইউভি রশ্মির হাত থেকে রক্ষা করতে আস্থা রাখুন মুগ ডালে। ডাল পেস্টের সঙ্গে ঠাণ্ডা দই বা আলোভেরা জেল মেশান। তারপর সেই মিশ্রণ আক্রান্ত স্থানে কিছুক্ষণ লাগিয়ে রাখুন। ১০ মিনিট পর ধুয়ে নিন। এটা সপ্তাহে ২ দিন করলেই উপকার পাবেন।

তাই বুঝতে ই পারছেন নিয়মিত মুগডাল ব্যবহার আপনার ত্বককে করে তুলবে উজ্জ্বল ও কোমল।