চলে গেলেন বিশ্বের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ লম্বা ব্যক্তি

Spread the love

মাত্র ৩৩ বছর বয়সেই চলে গেলেন সাবা জব্বর হাদি। এতটাই লম্বা ছিলেন তিনি। ৮ ফুট উচ্চতা। শুনলে অবাক লাগে। কিন্তু এটাই তো সত্য।

এমন সুবিশাল উচ্চতা নিয়ে তাকে ৩৩ বছর ধরে ভুগতে হয়েছে। শুরু থেকেই নানা শারীরিক সমস্যায় ছিলেন তিনি। আর তার বেশির ভাগটাই এমন অস্বাভাবিক উচ্চতার জন্য। শেষ পর্যায় এসে গুরুতর হার্টের সমস্যায় কাবু হয়ে পড়েছিলেন সাবা জব্বর।

তার উচ্চতা ৭.৯৪ ফুট। ইরাকের সবচেয়ে লম্বা ব্যক্তি হিসেবে তিনি বিশ্ববাসীর কাছে পরিচিত ছিলেন। তবে তিনিই বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা ব্যক্তি নন। উচ্চতার বিচারে তুরস্কের সুলতান কোসেনের পর দ্বিতীয় ছিলেন তিনি। জব্বরের থেকে তিনি প্রায় দেড় ইঞ্চি মতো বেশি লম্বা।

সম্প্রতি থাইরয়েড সার্জারির জন্য ভারতে এসেছিলেন জব্বর হাদি। কিন্তু চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেলেন। প্রাথমিকভাবে তার মৃত্যুর কারণ হিসেবে হার্ট অ্যাটাক-কে দায়ী করা হচ্ছে।

বিয়ে করতে চেয়েছিলেন জব্বর হাদি। কিন্তু এমন অস্বাভাবিক উচ্চতার মানুষকে কেউ জীবনসঙ্গী হিসেবে পেতে চাননি। তাই শেষমেশ আর জব্বরের বিয়ে করার সাধটুকু পূরণ হয়নি। সেই নিয়ে আক্ষেপের কথাও বলেছিলেন এক সাক্ষাৎকারে।