এবারের ‘ইত্যাদি’ উত্তরবঙ্গের নীলফামারীতে

Spread the love

উত্তরের প্রাচীন জনপদ নীলফামারীতেবিভিন্ন স্থানে গিয়ে ইত্যাদি ধারণের ধারাবাহিকতায় এবারের পর্ব ধারণ করা হয়েছে। এ পর্বে রয়েছে নীলফামারীর ইতিহাস, ঐতিহ্য এবং নীল চাষের ওপর একটি প্রতিবেদন। নীলফামারীর সন্তান ইবরার টিপুর সঙ্গীতায়োজনে এ অঞ্চলের প্রায় ১৫০ বছর পুরনো একটি চটকা গান রয়েছে। ইবরার টিপুর সঙ্গে গানটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন টি ডব্লিউ সৈনিক, ফারুক ভূঁইয়া, তাজ, শাহীন ও সহশিল্পীবৃন্দ। এ ছাড়া নীলফামারীকে নিয়ে মোহাম্মদ রফিকউজ্জামানের কথায় এবং মেহেদীর সঙ্গীতায়োজনে একটি গানের সঙ্গে নৃত্য পরিবেশন করেছেন উত্তরা ইপিজেডের এক দল শ্রমজীবী মানুষ।

দর্শক পর্বের বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। এ পর্বে হানিফ সংকেতের সঙ্গে রয়েছে তার একটি ভিন্নরকম সাক্ষাৎকার। নিয়মিত পর্বসহ এবারও রয়েছে বিভিন্ন সমসাময়িক ঘটনা নিয়ে বেশ কিছু সরস অথচ তীক্ষষ্ট নাট্যাংশ।

নিজ স্বার্থ পরমার্থ, শিশু সুরক্ষায় সংগঠন, ক্যামেরা আতঙ্ক, খাঁটি মানুষ তৈরির কারখানা, গণমাধ্যমের গণপরামর্শ কেন্দ্র, মোবাইল ফোন বিড়ম্বনাসহ বিভিন্ন বিষয়ের ওপর রয়েছে বেশ কয়েকটি নাট্যাংশ। বরাবরের মতো এবারও ইত্যাদির শিল্প নির্দেশনা ও মঞ্চ পরিকল্পনায় ছিলেন ইত্যাদির নিয়মিত শিল্পনির্দেশক মুকিমুল আনোয়ার মুকিম।

ইত্যাদির এই পর্ব একযোগে বিটিভি ও বিটিভি ওয়ার্ল্ডে প্রচার হবে ৫ অক্টোবর শুক্রবার রাত ৮টার বাংলা সংবাদের পর। ইত্যাদির রচনা, পরিচালনা ও উপস্থাপনা করেছেন হানিফ সংকেত। নির্মাণ করেছে ফাগুন অডিও ভিশন।

রয়েছে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত নেদারল্যান্ডসের নাগরিক আনোয়ারা বেগমের নিজের শিকড়ের সন্ধানের ওপর ফলোআপ প্রতিবেদনসহ তিনটি প্রতিবেদন।