আ.লীগ থেকে নির্বাচনে দাঁড়াচ্ছেন নায়ক ফেরদৌস

Spread the love

অভিনেতা ফেরদৌস আহমেদ। অভিনেতা থেকে এবার তিনি নেতা হচ্ছেন। আগামী জাতীয় নির্বাচনে তিনি আওয়ামী লীগের হয়ে ভোট যুদ্ধে নামার চিন্তা করছেন। যার প্রমাণ দেখা গেছে সম্প্রতি। কিছুদিন আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফর সঙ্গী হয়ে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৩তম অধিবেশনে যোগ দিতে ঢাকা ছাড়েন তিনি। সেই সময় প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী ছিলেন রিয়াজ আহমেদ ও ফেরদৌস আহমেদ। এরপর থেকেই গুঞ্জন ওঠে যে ফেরদৌস হয়তো রাজনীতিতে নামছেন।

বিষয়টি নিয়ে ফেরদৌস বলেন, ‘ঘটনা কী আমিও বুঝতেছি না। আমাদের দুজনকে (রিয়াজ-ফেরদৌস) তো সফরসঙ্গী করে নিয়ে গেলেন প্রধানমন্ত্রী। আর আসার পর থেকেই দেখছি এ বিষয়ে বেশ আলোচনা হচ্ছে। আসলে এখনও কিছু ফাইনাল হয়নি। আমাকে দল থেকে কিংবা নেত্রীর পক্ষ থেকে কেউই কিছু বলেনি। তবে প্রধানমন্ত্রী চাইলে নির্বাচন করব।’

তিনি আরও বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী যদি অনুভব করেন আমাকে দিয়ে হবে, তাহলে আমি নির্বাচন করব। বিষয়টা হলো যেহেতু আমি কাদের ভাইয়ের একটি গল্প নিয়ে সিনেমা বানাচ্ছি, আবার নেত্রীর সঙ্গে সফরসঙ্গী হয়ে গিয়েছি। এ নিয়ে মানুষের মধ্যে এক প্রকার আগ্রহ জন্মেছে। এখন এসব কারণে আস্তে আস্তে আমারও এ বিষয়ে আগ্রহ বাড়ছে। এখন সময়ই সব বলে দিবে।

আসছে নির্বাচনে ফেরদৌসকে যশোর-৩ আসনের আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে দেখার সম্ভাবনা রয়েছে। তিনি ওই আসনে মনোনয়নপ্রত্যাশী। এরই মধ্যে আওয়ামী লীগের উপর মহল থেকে গ্রিন সিগন্যালও পেয়েছেন ফেরদৌস।

উল্লেখ্য, ফেরদৌসের অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্র প্রয়াত নায়ক সালমান শাহ এর অসমাপ্ত কাজ বুকের ভিতর আগুন। এটির পরিচালক ছিলেন ছটকু আহমেদ। ১৯৯৮ সালে তিনি খ্যাতিমান চলচ্চিত্রকার বাসু চ্যাটার্জি পরিচালিত হঠাৎ বৃষ্টি ছবিতে অভিনয় করে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেন।